হাড়িভাঙ্গা আম পাকার সময়|হাড়িভাঙ্গা আম চেনার উপায়

posted in: Uncategorized | 0
  1. হাড়িভাঙ্গা আম পাকার সময় জুন মাসের মাঝামাঝি পাকতে শুরু করে। আগস্ট মাসের প্রথম সপ্তাহ পর্যন্ত হাঁড়িভাঙ্গা আম পাওয়া যায় তবে জুন থেকে আমের দাম জুলাই এর শেষ দিকে দাম দুই বা তিনগুণ পর্যন্ত বেড়ে যায়www.Facebook.Com/RajshahiFood
  2. অনেকেই আম কিনতে গিয়ে এসব সমস্যার সম্মুখীন হন।তাই পছন্দের আম কিনতে চাইলে আম চেনা জরুরি।01749528723আসুন জেনে নিই কোন আম দেখতে কেমন?
  3. হাঁড়িভাঙ্গা আমঃ- হাড়িভাঙ্গা আম দেখতে অনেকটা ক্ষিরসাপাত আমের। নিচের দিকে একটু বাঁকা এবং বোচা হয়।পাকলে সুন্দর লালচে দেখায়, হলুদাভ লাল রং ধারন করতে পারে।তিন বা চারটায় কেজি হয়।
  4. গোপালভোগ গোপালভোগের গায়ে হলুদ ছোপ ছোপ দাগ আছে। এটির নিচের দিকে একটু সরু হয়ে থাকে। এই আম পাকার পর হলুদ হয়ে যায়। মে মাসের দ্বিতীয় সপ্তাহ থেকে পাওয়া যায় এই আম।। 
  5. রাণী পছন্দরাণী পছন্দ দেখতে অনেকটা গোপালভোগের মতই। এর গায়েও হলুদ দাগ আছে কিন্তু আকারে ছোট। ফলে গোপালভোগের সঙ্গে রানী পছন্দ মেশালে আলাদা করা কষ্টকর।

    খিরসাপাত আম

    এই আম বাজারে পাওয়া যায় মে মাসের শেষে বা জুনের প্রথম সপ্তাহে। খুবই মিষ্টি খিরসাপাত আম অনেকে হিমসাগর বলে বিক্রি করেন। এই আম আকারে একটু বড় হয়। আমে হালকা দাগ আছে।01749528723

    আশ্বিনা ও ফজলী

    আশ্বিনা আর ফজলী আম দেখতে একই রকম। তবে আশ্বিনা আম একটু বেশি সবুজ ও ফজলী আম একটু হলুদ হয়। আশ্বিনার একটু পেট মোটা হয় ও ফজলী দেখতে লম্বা ধরনের হয়।

    বারি আম-২ বা লক্ষণভোগ

    বারি আম-২ বা লক্ষণভোগ চেনার সহজ উপায় হলো নাক আছে মাঝামাঝি স্থানে। মিষ্টি কম ও পাকলে হলুদ রং আসে। সাধারণত জুন মাসের শুরুর দিকে এই আম বাজারে পা্ওয়া যায়।

    রুপালী আম বা আম্রপালি

    রুপালী আম বা আম্রপালি নিচের দিকে একটু সুঁচালো, উপরে একটু গোল। এই আমরা মিষ্টি বেশি ও স্বাদে ভিন্নরকম।

    ল্যাংড়া

    ল্যাংড়া আম দেখতে কিছুটা গোলাকার ও মসৃণ। এটির নাকটি দেখা যায় নিচের দিকে। এর চামড়া খুবই পাতলা।

    পরিপক্ক আম যেভাবে চিনবেন

    পাকা আম সাধারণ হলুদাভ হয় এবং পানিতে রাখলে ডুবে যায়।

    সূত্র : বিবিসি বাংলা

মিঠাপুকুরের খোড়াগাছ, রাণীপুকুর, ময়েনপুর, বালুয়া মাসিমপুর, বড়বালা, গোপালপুর, দুর্গাপুর ও পায়রাবন্দ ইউনিয়নের ৩ হাজারের মতো চাষি হাড়িভাঙ্গা আম চাষ করে থাকেন।

জুন মাসের ১৫-২৫ পর্যন্ত ৭০-৯০ টাকা করে কেজি বিক্রি হয় হাঁড়িভাংগা আম।

www.Facebook.com/RajshahiFood

জুনের ২৬ থেকে জুলাই ৫ তারিখ পর্যন্ত ১০০-১২০ টাকায় দাম উঠে যায় কিন্তু জুলাই এর ৫ তারিখ পর যখন আম কমে আসে তখন সেই হাড়িভাংগা আমের দাম বেড়ে হয়ে যায় ১৫০- ২০০ টাকা করে কেজি।

01749528723

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *